কালীপ্রসন্ন ঘোষ

উইকিউক্তি থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
কালীপ্রসন্ন ঘোষ

কালীপ্রসন্ন ঘোষ (২৩ জুলাই ১৮৪৩ - ২৯ অক্টোবর ১৯১০) ছিলেন একজন বাঙালী সাহিত্যিক, লেখক, সাংবাদিক। ১৮৪৩ সালের ২৩ জুলাই ঢাকা বিভাগের বিক্রমপুরের ভরাকর গ্রামে তাঁর জন্ম। তার পিতার নাম শিবনাথ ঘোষ। কালীপ্রসন্ন ছিলেন পূর্ববঙ্গীয় ব্রাহ্মসমাজের একজন বিশিষ্ট সভ্য। তাঁর সাংবাদিক জীবন শুরু হয় ঢাকার ব্রাহ্মসমাজ প্রতিষ্ঠিত ‘ঢাকা শুভসাধিনী সভার’ মুখপত্র শুভসাধিনী (১৮৭০) সম্পাদনার মাধ্যমে। কালীপ্রসন্ন দর্শন ও সমাজ সম্পর্কে অনেক মূল্যবান প্রবন্ধ ও গ্রন্থ রচনা করেন। প্রবন্ধগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য: প্রভাত-চিন্তা, নিভৃত-চিন্তা, নারীজাতিবিষয়ক প্রস্তাব ও নিশীথ-চিন্তা। আর তাঁর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলি হচ্ছে: ভ্রান্তিবিনোদ, প্রমোদলহরী, ভক্তির জয়, মা না মহাশক্তি, জানকীর অগ্নিপরীক্ষা, ছায়াদর্শনপ্রভৃতি। এ ছাড়া সঙ্গীতমঞ্জরী নামে একখানি আধ্যাত্মিক সঙ্গীতসংগ্রহ এবং কোমল কবিতা নামে একখানা শিশুপাঠ্য গ্রন্থও তিনি রচনা করেন।

উক্তি[সম্পাদনা]

  • 'পারিব না' একথাটি বলিও না আর,
    কেন পারিবে না তাহা ভাব একবার।
    পাঁচজনে পারে যাহা,
    তুমিও পারিবে তাহা,
    পার কি না পার কর পরখ তাহার,
    একবার না পারিলে দেখ শতবার।
    • পারিব না, সাহিত্য কথা, তৃতীয় ভাগ, পৃষ্ঠা ৭২

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

উইকিসংকলন
উইকিসংকলনে এই লেখক রচিত অথবা লেখক সম্পর্কিত রচনা রয়েছে: