বিষয়বস্তুতে চলুন

মিশা সওদাগর

উইকিউক্তি, মুক্ত উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন থেকে

শহীদ হাসান মিশা হচ্ছেন একজন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র অভিনেতা। তিনি ২০২০ সাল পর্যন্ত ৯৫০টি বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তিনি বেশিরভাগই চলচ্চিত্রে খলনায়ক হিসেবে অভিনয় করে থাকেন। বস নাম্বার ওয়ান (২০১১), অল্প অল্প প্রেমের গল্প (২০১৪) এবং বীর (২০২০) ছবিতে তার ভূমিকার জন্য তিনি ৩ বার বাংলাদেশ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

উক্তি[সম্পাদনা]

  • ‘৩০ বছর পার করার পর আমার উপলব্ধি হচ্ছে, মানুষের কাছে শ্রেষ্ঠ সম্পদ হচ্ছে তার মা। আর একজন পুরুষের কাছে শ্রেষ্ঠ সম্পত্তি হচ্ছে তার স্ত্রী। জেতার মানসম্মান অর্থ প্রতিপত্তি সুখ-দুঃখ আনন্দ বেদনা সন্তান-সন্ততির আমানত হিসেবে রক্ষা করে। তোমার প্রতি অনেক কৃতজ্ঞতা অনেক ভালোবাসা। আমাকে আজকের দিনে কবুল করার জন্য তোমার কাছে আমি অনেক কৃতজ্ঞ।’
    • তার স্ত্রী প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট লিখেন। সময় টিভি
  • যত বাড়বে বিভক্তি ততই কমবে শক্তি
  • আমাদের এমন কেউ কি নেই যে এই দুইজনকে একত্র করে এক টেবিলে বসিয়ে হাতে হাত মিলিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দেবে? কারণ একটা কথা তো আমরা সবাই জানি যত বাড়বে বিভক্তি ততই কমবে শক্তি। আমাদের সবচেয়ে সম্মান করার বিষয়টা হচ্ছে আমাদের দেশ, আমাদের পতাকা। এখানে তামিম সাকিব আর টিম ম্যানেজমেন্ট বড় না। সবার ওপরে দেশ জন্মভুমি, নেতৃত্ব আর ভালোবাসা। স্যাক্রিফাইস থাকলে সব-ই সম্ভব। উদাহরণ আমাদের বিজয় ১৯৭১।’

মিশা সওদাগরকে নিয়ে উক্তি[সম্পাদনা]

  • মিশা ভাই অভিযোগ করেছেন বাপ্পি তাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিলো শুটিংয়ে শট দেয়ার সময়। তাকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। আরে ভাই শুটিংয়ের সময় এমন অনেক দুর্ঘটনাই ঘটে। আর আপনি তো মরে যাননি। বাপ্পি আমাদের অনেক জুনিয়র একজন আর্টিস্ট। ওর ভুল হতেই পারে। আপনি তখন সেটি ব্যালেন্স করে নিতেন। শ্যুটিংয়ে মিশা ভাই মেয়েদের ধরলে তার জান বের হয়ে যায়। আর রেপ সিন থাকলে তো কথাই নাই। আমি অনেক দেখেছি অনেক মেয়ের চুল এমনভাবে ধরে টান দিতো মিশা ভাই তাদের চুল ছিড়ে যেতো।
  • গণমাধ্যাম দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ডন বলেন

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]