বিষয়বস্তুতে চলুন

শওকত ওসমান

উইকিউক্তি, মুক্ত উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন থেকে

শওকত ওসমান (২ জানুয়ারি ১৯১৭–মে ১৪, ১৯৯৮) বিংশ শতাব্দীর বাংলাদেশের একজন স্বনামখ্যাত লেখক ও কথাসাহিত্যিক। জন্মসূত্রে তাঁর নাম শেখ আজিজুর রহমান। শওকত ওসমান একাধারে নাটক, গল্প, উপন্যাস, প্রবন্ধ, রম্যরচনা, রাজনৈতিক লেখা ও শিশু-কিশোর সাহিত্য রচনা করেছেন। তিনি মুক্তচিন্তার বুদ্ধিজীবী হিসাবে সমধিক পরিচিত ছিলেন। ১৯১৭ খ্রিষ্টাব্দের ২ জানুয়ারি পশ্চিম বঙ্গের হুগলি জেলার সবল সিংহপুর গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ক্রীতদাসের হাসি তাঁর প্রসিদ্ধ উপন্যাস। বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে বিশেষ অবদানের জন্য তিনি ১৯৬২ সালে বাংলা একাডেমী পুরস্কার, ১৯৬৬ সালে আদমজী সাহিত্য পুরস্কার, ১৯৬৭ সালে পাকিস্তান সরকারের প্রেসিডেন্ট পুরস্কার , ১৯৮৩ সালে একুশে পদক এবং ১৯৯৭ সালে স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার ইত্যাদি শীর্ষপর্যায়ী পুরস্কার ও পদকে ভূষিত হন। তার রচিত অন্যান্য উপন্যাসগুলো হলো জাহান্নম হইতে বিদায়, জননী ,আর্তনাদ ইত্যাদি । ১৯৯৮ সালের ১৪ই মে ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন।

উক্তি[সম্পাদনা]

ক্রীতদাসের হাসি (১৯৬১)[সম্পাদনা]

  • বুদ্ধি আর বোধি - আক্কেল আর উপভোগ, দুইই জীবনে দরকার।
  • হাসি মানুষের আত্মারই প্রতিধ্বনি।
  • কল্পনা তো মিথ্যাই হয়ে যায় না। মহাকাল তাকে বরণ করে।
  • আজো মানুষ নিজের বিচার করতে শিখে নি।
  • জয় বা পরাজয়ের গ্লানি মেটাতে পরাজিতদের গাল দেওয়া একটা রেওয়াজ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
  • রুপের হাটই আসল হাট।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]