বিষয়বস্তুতে চলুন

অগ্রহায়ণ

উইকিউক্তি, মুক্ত উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন থেকে

অগ্রহায়ণ বা অঘ্রান বাংলা সনের অষ্টম মাস। এই মাসের আরেক নাম মার্গশীর্ষ। মৃগশিরা নামক তারা থেকে 'মার্গশীর্ষ' নামটি এসেছে।

উক্তি[সম্পাদনা]

  • অঘ্রানে শীতের রাতে নিষ্ঠুর শিশিরঘাতে
    পদ্মগুলি গিয়াছে মরিয়া।
    সুদাস মালীর ঘরে কাননের সরোবরে
    একটি ফুটেছে কী করিয়া।
  • নবীনের লাল ঝান্ডা উড়ায়ে আসিতেছে কিশলয়,
    রক্ত-নিশান নহে যে রে ওরা রিক্ত শাখার জয়!
    ‘মুজ্‌দা’ এনেছে অগ্রহায়ণ –
    আসে নওরোজ খোলো গো তোরণ!
    গোলা ভরে রাখো সারা বছরের হাসি-ভরা সঞ্চয়।
    বাসি বিছানায় জাগিতেছে শিশু সুন্দর নির্ভয়!
  • আমি এই অঘ্রাণেরে ভালোবাসি—বিকেলের এই রঙ—রঙের শূন্যতা
    রোদের নরম রোম—ঢালু মাঠ—বিবর্ণ বাদামি পাখি—হলুদ বিচালি
    পাতা কুড়াবার দিন ঘাসে-ঘাসে—কুড়ুনির মুখে তাই নাই কোনো কথা।
    • জীবনানন্দ দাশ, জীবনানন্দ দাশের কাব্যগ্রন্থ (প্রথম খণ্ড) - জীবনানন্দ দাশ, প্রকাশক- বেঙ্গল পাবলিশার্স, কলকাতা, প্রকাশসাল- ১৯৪০ খ্রিস্টাব্দ (১৩৪৭ বঙ্গাব্দ), পৃষ্ঠা ৯১
  • আজ এই মাঠ সূর্য সহধর্মী অঘ্রাণ কার্তিকে
    প্রাণ তার ভরে গেছে।
  • অঘ্রাণে নবান্ন দেয় নতুন ধান কেটে,
    পৌষ মাসে বাউনী বাঁধে ঘরে ঘরে পিঠে।
    মাঘ মাসে শ্রীপঞ্চমী ছেলের হাতে খড়ি,
    ফাগুন মাসে দোলযাত্রা ফাগ ছড়াছড়ি।
    • অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর, সন্ধ্যার উৎসব, বাগেশ্বরী শিল্প-প্রবন্ধাবলী- অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর, প্রকাশক- কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় প্রকাশনা সংস্থা, প্রকাশস্থান- কলকাতা, প্রকাশসাল- ১৯৪১ খ্রিস্টাব্দ (১৩৪৮ বঙ্গাব্দ), পৃষ্ঠা ১৩৮
  • অঘ্রাণে না যদি হয় বৃষ্টি, না হয় কাঁটালের সৃষ্টি।৷

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]