বিষয়বস্তুতে চলুন

অরবিন্দ ঘোষ

উইকিউক্তি, মুক্ত উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন থেকে
অরবিন্দ ঘোষ

অরবিন্দ ঘোষ (১৮৭২ - ১৯৫০) তিনি ছিলেন একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ, দার্শনিক, যোগী এবং গুরু। তিনি ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। কংগ্রেসের চরমপন্থী গ্রুপের নেতৃত্বে থাকাকালে বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনেও (১৯০৫–১৯১১) গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন তিনি।

উক্তি[সম্পাদনা]

  • মনের অবস্থায় সুখ, মনের অবস্থায় দুঃখ। সুখ-দুঃখ মনের বিকার মাত্র।
    • স্বপ্ন, জগন্নাথের রথ - শ্রী অরবিন্দ, তৃতীয় সংস্করণ, প্রকাশক- শ্রী অরবিন্দ আশ্রম, প্রকাশস্থান- পণ্ডিচেরী, প্রকাশসাল- ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দ (১৩৫৭ বঙ্গাব্দ), পৃষ্ঠা ৩৭
  • আলো চাই, স্বাতন্ত্র্য চাই, চাই অমৃতত্বের অধিকার, চাই দিব্যজীবনের ভাস্বর মহিমা - এই অভীপ্সা নিয়ে যেমন মানুষের যাত্রা শুরু, তেমনি এর চরিতার্থতাতেই তার ইতি। এর চেয়ে বৃহত্তর কামনা তার মনেরও অগোচর।
  • মন্দিরের দ্বারে তুমি ভগবদ্ভক্ত কিনা, এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা না করিয়া তুমি রাজভক্ত কিনা, এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয়, সেই মন্দির যেন কোন ভগবদ্ভক্ত না মাড়ান।
  • সম্রাটের প্রাপ্য যাহা তাহাই অর্পণ কর, ভগবানের প্রাপ্য যাহা তাহা ভগবানের, সম্রাটের নহে।
  • যখন শূন্য অবস্থা হয়, তখন শান্ত হয়ে মাকে ডাক। শূন্য অবস্থা সকলেরই হয় তবে শান্ত শূন্য অবস্থা হলে সাধনার উপকারী হয়—অশান্ত হলে তার ফল হয় না।

অরবিন্দ ঘোষকে নিয়ে উক্তি[সম্পাদনা]

  • অরবিন্দ, রবীন্দ্রের লহ নমস্কার।
    হে বন্ধু, হে দেশবন্ধু, স্বদেশ আত্মার
    বাণী-মূর্ত্তি তুমি। তোমা লাগি’ নহে মান,
    নহে ধন, নহে সুখ; কোনো ক্ষুদ্র দান
    চাহ নাই কোনো ক্ষুদ্র কৃপা; ভিক্ষা লাগি’
    বাড়াওনি আতুর অঞ্জলি। আছ জাগি’

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

উইকিসংকলন
উইকিসংকলন
উইকিসংকলনে এই লেখক রচিত অথবা লেখক সম্পর্কিত রচনা রয়েছে: