বুদ্ধদেব বসু

উইকিউক্তি থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন

বুদ্ধদেব বসু (৩০ নভেম্বর ১৯০৮ - ১৮ মার্চ ১৯৭৪) বিংশ শতাব্দীর একজন প্রভাবশালী বাঙালি কবি, প্রাবন্ধিক, নাট্যকার, কথাসাহিত্যিক, অনুবাদক, সম্পাদক ও সাহিত্য-সমালোচক ছিলেন। বিংশ শতাব্দীর বিশ ও ত্রিশের দশকে আধুনিক কবিতার যারা পথিকৃৎ তিনি তাদের একজন। তিনি বাংলা সাহিত্য সমালোচনার দিকপাল ও কবিতা পত্রিকার প্রকাশ ও সম্পাদনার জন্য তিনি বিশেষভাবে সমাদৃত।

উক্তি[সম্পাদনা]

  • দিদি মোরে ডাকে গোবিন্দচাঁদ, মা ডাকে চাঁদের আলো,
    মাথা খাও, মাঝি, কথা রাখো! তুমি লক্ষী, মিষ্টি, ভালো!
    বাবা বলেছেন, বড় হয়ে আমি হব বাঙলার লাট,
    তখন তোমাকে দিয়ে দেব মোর ছেলেবেলাকার খাট।
  • যৌবন করে না ক্ষমা প্রতি অঙ্গে অঙ্গীকার করে মনোরমা বিশ্বের শরীরে। অপরুপ উপহারে কখন সাজায় বোঝাও না যায়।
  • আমর দু’জন দেখি ব’সে ব’সে আকাশ কত না নীল,
    ছোট পাখি আরো ছোট হ’য়ে যায়- আকাশের মুখে তিল
    সারাদিন গোলা, সূর্য লুকালো জলের তলার ঘরে,
    সোনা হ’য়ে জ্বলে পদ্মার জল কালো হ’লো তার পরে।

বুদ্ধদেব বসুকে নিয়ে উক্তি[সম্পাদনা]

  • বস্তুত শুধু নিজে অজস্র রূপ ও রীতির কবিতা লিখেই নয়, সহযাত্রী এবং উত্তরসূরি আধুনিক কবি সমাজকে কবি মর্যাদায় সমুন্নীত করে কবিতা সম্পাদক বুদ্ধদেব বসু একালের বাংলা কাব্যের ইতিহাসে অমর হয়ে রইলেন।
    • বুদ্ধদেব বসু সম্পর্কে জগদীশ ভট্টাচার্য।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]