বার্ট্রান্ড রাসেল

উইকিউক্তি থেকে, উন্মুক্ত উৎসের উক্তি-উদ্ধৃতির সংকলন
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
বার্ট্রান্ড রাসেল

বার্ট্রান্ড রাসেল (১৮ মে ১৮৭২ – ২ ফেব্রুয়ারি ১৯৭০) ছিলেন একজন ব্রিটিশ দার্শনিক, যুক্তিবিদ, গণিতবিদ, ইতিহাসবেত্তা, সমাজকর্মী, অহিংসাবাদী, এবং সমাজ সমালোচক। তাকে বিশ্লেষণী দর্শনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে বিবেচনা করা হয়। তিনি ছিলেন একজন প্রখ্যাত যুদ্ধবিরোধী ব্যক্তিত্ব এবং জাতিসমূহের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্যে বিশ্বাস করতেন। তিনি ছিলেন সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী। রাসেল তার অহিংস মতবাদ প্রচারের জন্যে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় জেলবন্দী হন। তার দার্শনিক নিবন্ধ "অন ডিনোটিং" দর্শনশাস্ত্রে মডেল হিসেবে বিবেচিত হয়।

উক্তি[সম্পাদনা]

  • বিশ্বের মূল সমস্যা হচ্ছে, বোকা এবং গোঁড়া লোকেরা সব সময় নিশ্চিত থাকে আর জ্ঞানী লোকেরা সব সময় সংশয়ে থাকে।
  • বোকার স্বর্গে বাস করাদের সুখ দেখে হিংসা করো না, কারণ ওই অবস্থাকে সুখ ভাবা একমাত্র ‘বোকা’দের পক্ষেই সম্ভব।
  • অপ্রত্যক্ষভাবে মতৈক্যে না পৌঁছে ভিন্নমত পোষণ করো।
  • চিন্তা করার মানসিকতাকে কখনো নিরুৎসাহিত করো না। কারণ একমাত্র চিন্তার মাধ্যমেই সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া সম্ভব।
  • চিন্তন প্রক্রিয়ায় কখনোই ‘প্রমাণ’ গোপন করার চেষ্টা করো না। কারণ প্রমাণকে চিরদিন লুকিয়ে রাখা সম্ভব নয়।
  • বই পড়ার দুটি উদ্দেশ্য; এক, আপনি এটি উপভোগ করেন; অন্যটি, আপনি এটি নিয়ে অহংকার করতে পারেন।
  • মতবিকেন্দ্রিক হতে ভয় পাবেন না, কারণ এখন গৃহীত প্রতিটি মতামতই একসময় উদ্ভট ছিল।
  • ভয় হল কুসংস্কারের প্রধান উৎস এবং নিষঠুরতার অন্যতম উৎস। ভয়কে জয় করাই জ্ঞানের সূচনা।
  • জীবনে শেখার সবচেয়ে কঠিন জিনিস হল কোন সেতুটি অতিক্রম করতে হবে এবং কোনটি পোড়াতে হবে।
  • বলা হয় মানুষ একটি যুক্তিশীল প্রাণী। আমার সারা জীবন তার প্রমাণ খুঁজছি যা এটি সমর্থন করতে পারে।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]